• মঙ্গলবার ( ভোর ৫:১৩ )
  • ৪ঠা আগস্ট ২০২০ ইং

» নবীন লিখিয়েদের সাথে প্রাণবন্ত সন্ধ্যা…

প্রকাশিত: ০৫. ডিসেম্বর. ২০১৯ | বৃহস্পতিবার

দিনের শেষে সন্ধ্যা নেমে এলো। চারদিক কুয়াশাচ্ছন্ন ; যেন অন্যদিনের চেয়ে শীত আরও তীব্র হওয়ার আগাম সতর্কতা। মাগরিবের পরপর কক্সবাজার শহর থেকে রামু এসে পৌঁছালো আমার স্নেহের ছাত্র, সম্ভাবনাময়ী নবীন লিখিয়ে এহসানুল হক ও তার সহপাঠী আরেক তরুণ প্রতিভা সাইফুল ইসলাম। পূর্বপরিকল্পনা মত রামু থেকে যুক্ত হলো তাদের আরেক লেখক বন্ধু স্নেহের ছাত্র অলিউল্লাহ আরজু। উদ্দেশ্য আমার সাথে সাহিত্য চর্চা, লেখালেখি ও সাংবাদিকতা বিষয়ে আলোচনা, পরামর্শ গ্রহন। তাদের আগ্রহ, স্পৃহাকে কদর করা জরুরী। কারণ তাদের কলমই সুন্দর আগামী গড়ার শক্ত হাতিয়ার। তাই-তো শত ব্যস্ততার মাঝেও তাদেরকে সময় দেয়া। স্নেহাস্পদ এ ছাত্রদের নিয়ে কিছুক্ষণ বসেছিলাম রামু বাইপাসস্থ মজিদিয়া কমপ্লেক্সের ফুড গ্যালারীতে। শীতকালীন শীতল আবহে চায়ের কাপে চুমুক দিতে দিতে হয়ে গেল পারস্পরিক কুশলবিনিময়। এরপরই সংক্ষিপ্তভাবে আগমনী উদ্দেশ্য তুলে ধরলো প্রিয় এহসান। তারপর অনেকটা ভূমিকা ছাড়াই আমি আলোচনা শুরু করি। আসলে যাদের নিয়ে স্বপ্ন বুনি আদর্শিক সমাজ গড়ার, আমার চিন্তা-চেতনার সাথেও যাদের মিল আছে এমন ক’জন অনুরাগী ছাত্রকে পেয়ে বেশ খোলামেলা কিছু আলোচনা করি। যে আলোচনায় উঠে আসে ছোটবেলা থেকে সংবাদপত্র, ম্যাগাজিন ও লেখালেখির সাথে পরিচিত হয়ে লেখক হয়ে উঠার গল্প। উঠে আসে লেখালেখি অঙ্গনের নানা স্মৃতি। পাশাপাশি তাদেরকে এ বিষয়ে আমার জানার পরিসর থেকে কিছু দিক- নির্দেশনাও দেয়ার চেষ্টা করি। সবমিলিয়ে সত্যের পথে, আদর্শিক ধারায় লেখালেখিতে তাদের আগ্রহ ও দৃপ্ত শপথ আমাকেও অনুপ্রাণিত করেছে। করেছে আশান্বিত। আল্লাহ আমার এ প্রিয়ভাজনদের সৎসাহসী কলমযোদ্ধা হিসেবে কবুল করুন।

লেখক
হাফেজ মোহাম্মদ আবুল মন্জুর

ফেসবুক থেকে কমেন্ট করুন।
Share Button

এই সংবাদটি পড়া হয়েছে ২৮৮ বার

Share Button