• মঙ্গলবার ( ভোর ৫:৩৯ )
  • ৪ঠা আগস্ট ২০২০ ইং

» বর্ষীয়ান ও মেধাবী রাজনীতিবিদ মাওলানা আব্দুল লতিফ নেজামীর ইন্তেকাল….

প্রকাশিত: ১১. মে. ২০২০ | সোমবার

◑হাফেজ মুহাম্মদ আবুল মঞ্জুরঃ
বেশ কয়েক বছরে আমরা বহু বুযুর্গ ওলামায়েকেরাম ও শীর্ষ ইসলামী রাজনীতিবিদকে চিরতরে হারিয়েছি। সেই চিরবিদায়ী বরেণ্যজনদের তালিকায় যুক্ত হলেন, ইসলামী নেজাম প্রতিষ্ঠার সংগ্রামের অগ্রসেনানী, বর্ষীয়ান রাজনীতিবিদ, মেধাবী লেখক, ইসলামী ঐক্যজোটের চেয়ারম্যান মাওলানা আব্দুল লতিফ নেজামী Maulana Abdul Latif Nejami রহ.। তিনি আজ ১৭ রমযান (১১ মে) সোমবার, রাত ৮ টায় রাজধানী ঢাকার নিজ বাসায় ইন্তেকাল করেন-إِنَّا لِلّهِ وَإِنَّـا إِلَيْهِ رَاجِعونَ।

শায়খুল ইসলাম আল্লামা আতহার আলী রহ., আল্লামা সৈয়দ মুসলেহ উদ্দিন রহ., খতীবে আযম আল্লামা ছিদ্দিক আহমদ রহ., আল্লামা আশরাফ আলী ধরমন্ডলী রহ. সহ বহু বুযুর্গ মনীষীর সান্নিধ্যে তিনি ইসলামী নেজাম প্রতিষ্ঠার সংগ্রাম করেছেন। ঐতিহ্যবাহী ইসলামী রাজনৈতিক দল বাংলাদেশ নেজামে পার্টির নীতিনির্ধারনী নেতৃত্বে যুক্ত থেকে সারাটি জীবন এ দেশে ইসলামী আন্দোলন-সংগ্রামের অগ্রভাগে থেকে সাহসী ভূমিকা পালন করেছেন। আল্লামা মুফতি ফজলুল হক আমিনী রহ. এর ইন্তেকালের পর থেকে তিনি ইসলামী ঐক্যজোটের চেয়ারম্যান হিসেবে দায়িত্ব পালন করে আসছেন। এ দেশের ইসলামী রাজনীতির অঙ্গনে মাওলানা নেজামীর অবদান অবিস্মরণীয় হয়ে থাকবে।

কেবল রাজনৈতিক অঙ্গনে নয়; সত্যনিষ্ঠ সাংবাদিকতা, ইসলাম, দেশ ও জাতির বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ ইস্যুতে তাঁর ক্ষুরধার ও তাত্ত্বিক লিখনীও ছিল প্রশংসনীয়। একজন জাতীয় রাজনীতিবিদ হয়েও বিলাসিতা, মোহ, অহঙ্কার ও দাম্ভিকতামুক্ত সহজ- সরল জীবন যাপন করতেন। সদালাপচারিতা, বিনয়, ভদ্রতা ছিল তাঁর স্বভাবজাত বৈশিষ্ট্য।
২০০৪ সালে ফকিরাপুলে নেজামে ইসলাম পার্টির তৎকালীন কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের নিচে দৈনিক সরকার পত্রিকার অফিসে বরেণ্য এ রাজনীতিবিদের সাথে আমার প্রথম সাক্ষাত হয়। এরপর সাংগঠনিক বিভিন্ন আয়োজনে বহুবার দেখা সাক্ষাৎ হয়েছে। সবসময় তাঁকে সাদাসিধে লেবাস-পোশাকে, নম্র ও ভদ্র স্বভাবে দেখেছি।
মাহে রমযানে মাগফিরাতের দশকে আল্লাহ তা’আলার ডাকে সাড়া দিতে পারাটাও তাঁর জন্য বড়ই খোশনসিবের বিষয়।
আল্লাহ মরহুমকে জান্নাতের আ’লা মকাম নসীব করুন। আমিন।

ফেসবুক থেকে কমেন্ট করুন।
Share Button

এই সংবাদটি পড়া হয়েছে ১৬১ বার

Share Button